1. dev@desher.news : Admin : desher news
রবিবার, ২৩ জানুয়ারী ২০২২, ০৮:১০ পূর্বাহ্ন
শিরোনাম:
কক্সবাজারে ১৪৪ ধারা জারি করেছে প্রশাসন ব্যাটারিচালিত প্রায় ৪০ লাখ থ্রি হুইলার বন্ধের নির্দেশ হাইকোর্টের চট্টগ্রাম বন্দরের গার্ডার দেয়াল ধ্বসে বিপুল পরিমান ক্ষয়ক্ষতি নির্বাচিত হওয়ার পরের দিনই ইউপি মেম্বার ছুরিকাঘাতে নিহত বিদায় অনুষ্ঠানের বদলে র‍্যাগ ডে! সাদা টিশার্টে অশ্লীল ভাষা লিখার প্রতিযোগিতা করোনা যোদ্ধার খেতাব পেলেন বন্দর ইপিজেড পতেঙ্গা করোনা হাসপাতাল এর উদ্যোক্তা ও প্রধান সমন্বয়ক ডাঃ হোসেন আহম্মদ ভারতকে ১০ উইকেটে হারিয়ে বিশ্বকাপ শুরু পাকিস্তানের উৎসব মুখর পরিবেশে ডাঃ আনজুমান আরা ইসলাম ও ডাঃ আরিফুল আমিন পরিষদ এর নির্বাচনী প্রচারণা বিশাল জয়ে বিশ্বকাপের মূল পর্বে নামিবিয়া বিশাল জয়ে সুপার ১২তে বাংলাদেশ

অক্টোবর এর শেষে মালেশিয়ায় করোনা ভাইরাস হবে স্থানীয় রোগ

অনলাইন ডেস্কঃ
  • আপডেট টাইম : বুধবার, ৮ সেপ্টেম্বর, ২০২১

মালয়েশিয়া অক্টোবরের শেষের দিকে কোভিড -১৯ কে একটি স্থানীয় রোগ হিসেবে বিবেচনা করে চিকিৎসা শুরু করবে। মালয়েশিয়ার আন্তর্জাতিক বাণিজ্য ও শিল্প মন্ত্রী মোহাম্মদ আজমিন আলী মঙ্গলবার এই তথ্য জানিয়েছেন।

কোভিড মহামারী তখনই ‘স্থানীয় রোগ’ হিসাবে বিবেচিত হবে যখন এর জন্য দায়ী যখন সার্স-কোভ-২ ভাইরাস একটি নির্দ্দিষ্ট এলাকায় স্থায়ীভাবে থেকে যাবে এবং সেখানকার মানুষের মধ্যে ছড়িয়ে পড়বে। অন্যান্য স্থানীয় রোগের মধ্যে রয়েছে ইনফ্লুয়েঞ্জা, ডেঙ্গু এবং ম্যালেরিয়া। মালয়েশিয়া প্রতিদিনের কোভিড মহামারি নিয়ন্ত্রণে সংগ্রাম করে চলেছে, যার ফলে সরকার একাধিকবার লকডাউন আরোপ করেছে। দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক গত মাসে ২০২১ সালের জন্য অর্থনৈতিক প্রবৃদ্ধির পূর্বাভাস ৩ থেকে ৪ শতাংশে নামিয়ে এনেছে, যা পূর্বে ৬ থেকে ৭ দশমিক ৫ শতাংশ ছিল।

দেশটির একজন সিনিয়র মন্ত্রী আজমিন বলেন, বহিরাগত চাহিদা থাকায় এবং চলমান অবকাঠামো প্রকল্পের দ্বারা পুনরুদ্ধারের মাধ্যমে মালয়েশিয়ার অর্থনীতি স্থিতিশীল রয়ে গেছে। মন্ত্রী সিএনবিসির স্কোয়াক বক্স এশিয়াকে বলেন, ‘করোনা টিকার সামর্থ্য এবং সহজলভ্যতাই টেকসই অর্থনৈতিক পুনরুদ্ধার নিশ্চিত করার মূল কারণ।’ তিনি বলেন, মালয়েশিয়ার প্রাপ্তবয়স্ক জনগোষ্ঠীর ৭৫ শতাংশেরও বেশি লোককে অক্টোবরের শেষের দিকে সম্পূর্ণ টিকা দেয়া হবে বলে আশা করা হচ্ছে। বর্তমানে, প্রাপ্তবয়স্কদের ৮৮ শতাংশ বা সমগ্র জনসংখ্যার প্রায় ৬৩ শতাংশ কোভিড ভ্যাকসিনের কমপক্ষে একটি ডোজ পেয়েছে, সরকারী তথ্য অনুযায়ী।

স্বাস্থ্যমন্ত্রী খয়েরি জামালউদ্দিন গত সপ্তাহে বলেছিলেন যে, মালয়েশিয়া সরকার আগামী কয়েক সপ্তাহে কোভিড মহামারী পর্যায়ের প্রস্তুতির জন্য কিছু সামাজিক দূরত্ব ব্যবস্থা সহজতর করবে। তবে করোনাভাইরাসের বিস্তার সীমাবদ্ধ করতে এখনও মাস্কের প্রয়োজন হবে বলে তিনি যোগ করেন। মালয়েশিয়া ছাড়াও, ইন্দোনেশিয়া, থাইল্যান্ড, ভিয়েতনাম এবং ফিলিপাইন সহ দক্ষিণ-পূর্ব এশিয়ার দেশগুলো আরও সংক্রমণযোগ্য বদ্বীপের কারণে কোভিড -১৯ এর ক্ষেত্রে পুনরুত্থান অনুভব করেছে। সূত্র: সিএনবিসি।

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

এ জাতীয় আরো খবর..
এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা, ছবি, ভিডিও অনুমতি ছাড়া ব্যবহার সম্পূর্ণ বেআইনি
Theme Developed BY : Sky Host BD