1. milon@desher.news : Milon :
  2. shahriar@desher.news : Shahriar :
মঙ্গলবার, ১৩ এপ্রিল ২০২১, ০৯:৫২ অপরাহ্ন

বিজ্ঞাপন

হেফাজতের হামলার ছবি পোষ্ট, লাঞ্ছিত ছাত্রলীগনেতা: গ্রেপ্তার আ.লীগ নেতা, প্রত্যাহার ওসি

দেশের নিউজ ডেস্ক::
  • আপডেট টাইম : বৃহস্পতিবার, ৮ এপ্রিল, ২০২১

হেফাজতে ইসলামের হামলা ও আক্রমণের ছবি ফেসুবুকে পোষ্ট করা নিয়ে ছাত্রলীগনেতা আফজাল খানকে লাঞ্চিত করার মামলায় গ্রেপ্তার হয়েছেন আওয়ামী লীগ নেতা আবুল হাসেম। এ ঘটনায় প্রত্যাহার করা হয়েছে ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেনকে ।

সুনামগঞ্জ প্রতিনিধি, সময়ের কণ্ঠস্বর। সুনামগঞ্জের ধর্মপাশায় ছাত্রলীগনেতাকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় করা মামলায় হরিপুর সাতঘরিয়া গ্রামের নিজ বাড়ি থেকে বুধবার রাতে জয়শ্রী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম আলমকে গ্রেপ্তার করেছে পুলিশ। এ ঘটনায় প্রত্যাহার করা হয়েছে ধর্মপাশা থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) দেলোয়ার হোসেনকেও । এর আগে দুপুরে একই ঘটনায় ধর্মপাশা থানার উপ-পরিদর্শক (এসআই) জহিরুল ইসলাম ও সহকারী উপ-পরিদর্শক (এএসআই) আনোয়ার হোসেনকেও প্রত্যাহার করা হয়েছিল। গনমাধ্যমকে এসব তথ্য নিশ্চিত করে সুনামগঞ্জের অতিরিক্ত পুলিশ সুপার (অপরাধ) সাহেব আলী পাঠান জানান, বুধবার (৭ এপ্রিল) রাতে ধর্মপাশার থানার ওসি দেলোয়ার হোসেনকে সুনামগঞ্জ পুলিশ লাইনসে সংযুক্ত করা হয়েছে। তিনি বলেন, ঢাকা বিশ্ববিদ্যালয় ছাত্রলীগের উপ আন্তর্জাতিক বিষয়ক সম্পাদক ও স্যার এফ রহমান হলের সাংগঠনিক সম্পাদক আফজাল খানকে লাঞ্ছিত করার ঘটনায় আবুল হাসেমকে আটক করা হয়েছে। এ ঘটনায় ২৯ জনের নামে ধর্মপাশা থানায় মামলা করেছেন ছাত্রলীগের ওই নেতা। ঘটনার শিকার ও লাঞ্ছিত বিশ্ববিদ্যালয় পড়ুয়া ছাত্র আফজাল জানান, তার সঙ্গে ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক হরিপুর সাতঘরিয়া গ্রামের আবুল হাসেম আলমের ছেলে আল মোজাহিদের বিরোধ ছিল।

তিনি বলেন, ‘সম্প্রতি দেশব্যাপী হেফাজতে ইসলামের হামলা ও আক্রমণের কিছু ছবি আমার ফেসবুক অ্যাকাউন্ট থেকে পোস্ট করি যা কাজে লাগিয়ে মোজাহিদ ধর্ম অবমাননা এবং আল্লাহ-রাসুলের সমালোচনা হিসেবে প্রচার চালিয়ে এলাকাবাসীকে ক্ষুব্ধ করে।

তিনি আরও জানান, ‘আমি গতকাল (মঙ্গলবার) বিকেলে জয়শ্রী বাজারে ঘুরতে গেলে আমাকে শারীরিকভাবে লাঞ্ছিত করে হেফাজত সমর্থকরা। পরে আওয়ামী লীগের স্থানীয় কার্যালয়ে নিয়ে আমাকে দুই ঘণ্টা অবরুদ্ধ করে লাঞ্ছিত করে।’ আফজাল আরও বলেন, ‘তারা আমাকে অবরুদ্ধ করে রাখলে আমি আমার বিশ্ববিদ্যালয়ের ছাত্রলীগের সভাপতিকে জানাই। তিনি সুনামগঞ্জের এসপিকে ফোন করলে পুলিশ এসে আমাকে আটক করে হাতকড়া পরায়। এ সময় জোর করে আওয়ামী লীগ নেতা আবুল হাসেম আলম ও যুবলীগ নেতা এনায়েত আমাকে বাধ্য করে হাতকড়া পরে ক্ষমা চাইতে।’ এরপর তাকে ছেড়ে দেয়া হয়। বিষয়টি সামাজিক যোগাযোগ মাধ্যমে ছড়িয়ে পড়লে বুধবার বিকেলে ধর্মপাশা উপজেলার জয়শ্রী ইউনিয়ন আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক আবুল হাসেম আলমকে দল থেকে বহিষ্কার করা হয়। প্রসঙ্গত, সাম্প্রতিক সময়ে হেফাজতের ডাকা হরতালে ভাঙচুর-সহিংসতার ছবি ফেসবুকে পোস্ট করে লাঞ্ছনার শিকার হন আফজাল। স্বাধীনতার সুবর্ণজয়ন্তীতে বাংলাদেশে ভারতের প্রধানমন্ত্রী নরেন্দ্র মোদির আগমনের বিরুদ্ধে হেফাজতের নেতাকর্মীদের বিক্ষোভে প্রাণহানির প্রতিবাদে ওই হরতাল ডাকা হয়েছিল।

সূত্র :সময়ের কণ্ঠস্বর

বিজ্ঞাপন

নিউজটি শেয়ার করুন

Leave a Reply

Your email address will not be published. Required fields are marked *

আরো খবর...

বিজ্ঞাপন

মাহে রমজানের সাহরী ও ইফতারের সময়সূচী::

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

বিজ্ঞাপন

এই ওয়েবসাইটের কোনো লেখা বা ছবি অনুমতি ছাড়া নকল করা বা অন্য কোথাও প্রকাশ করা সম্পূর্ণ বেআইনি।
Theme Customized BY LatestNews